নিউজ

সাংবাদিক কাজী জাওয়াদের আজীবন সম্মাননা লাভ

।। সুরমা প্রতিবেদন ।।

লণ্ডন, ২৯ সেপ্টেম্ব : সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ আজীবন সম্মাননা লাভ করেছেন বিবিসি ও বিচিত্রাখ্যাত ব্রিটিশ-বাংলাদেশী সাংবাদিক কাজী জাওয়াদ। যুক্তরাজ্যের ৫৪টি সাংস্কৃতিক সংগঠনের ঐক্যজোট ইউনাইটেড কিংডম বেঙ্গলি কনভেনশন- ইউকেবিসি তাঁকে এই সম্মাননা প্রদান করে।গত ২৬ সেপ্টেম্বর কেইমব্রিজে অনুষ্ঠিত ‘বিলেতের বুকে বাঙালিয়ানা’ শীর্ষক সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁর হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন ইউকেবিসি’র অন্যতম সংগঠক সোমা ঘোষ।

চার দশকেরও বেশী সময় ধরে কাজী জাওয়াদ সাংবাদিকতায় জড়িত। বাংলাদেশে থাকাকালীন তিনি সাপ্তাহিক বিচিত্রার প্রধান প্রতিবেদক হিসেবে কাজ করে সুনাম অর্জন করেন। তৎকালে তাঁর রচিত বেশকিছু প্রচ্ছদ প্রতিবেদন বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করে। সংবাদ রচনায় বস্তুনিষ্ঠতা ছিল তাঁর প্রতিবেদনের প্রধান বৈশিষ্ট্য। সামরিক শাসকের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন লিখে তিনি সাহসিকতার পরিচয় দেন। পরবর্তীতে বিচিত্রার চাকরী ছেড়ে দিয়ে বিবিসি বাংলা সার্ভিসে চাকরী নিয়ে তিনি পাড়ি জমান যুক্তরাজ্যে। বিবিসির সঙ্গে চুক্তি শেষ হওয়ার পর দীর্ঘদিন কাজ করেন যুক্তরাজ্যের স্বাস্হ্য বিভাগে। বর্তমানে তিনি বার্মিংহামে অবসর জীবন যাপন করছেন এবং পুরোদমে লেখালেখিতে মনোনিবেশ করেছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রীধারী স্বনামধন্য সাংবাদিক কাজী জাওয়াদ সাংবাদিকতার পাশাপাশি অনুবাদ সাহিত্যেও কাজ করে চলেছেন। ইতোমধ্যে দিব্য প্রকাশ ও দৈনিক প্রথম আলোর সহযোগী প্রতিষ্ঠান প্রথমা প্রকাশন থেকে তাঁর কয়েকটি বই প্রকাশিত হয়েছে; যেগুলো সুধী মহলের প্রশংসা লাভ করে। তাঁর প্রকাশিত বইগুলোর মধ্যে অন্যতম— লিও তলস্তয়কে নিয়ে রচিত হাজি মুরাদ, নোবেলজয়ী কাজুও ইশিগুরোকে নিয়ে রচিত বিনোদনের এক শিল্পী, একাত্তরের খোয়াবী যুদ্ধযাত্রী ও বাহ কিন্দর হেরে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close