নিউজ

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত

অস্ত্রবোঝাই দু’টি গাড়ি আটক
২৮টি একে-৪৭ রাইফেলসহ বিপুল অস্ত্র উদ্ধার


।। সুরমা প্রতিবেদন ।।
লণ্ডন, ১ অক্টোবর – বাংলাদেশ-মিজোরাম সীমান্তে সোমবার ধরা পড়েছে দুটি অস্ত্রবোঝাই গাড়ি। এই ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে বিএসএফ। তাদের জেরা করে ওই অস্ত্র কোথায় পাঠানো হচ্ছিল তার অনুসন্ধানের চেষ্টা চলছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যম খবর দিয়েছে। 
সোমবার রাতে বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে বাংলাদেশ সীমান্ত সংলগ্ন মিজোরামের মামিট জেলার পশ্চিম ফাইলেং এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছিলেন বিএসএফের জওয়ানরা। ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সে সময় অস্ত্রবোঝাই ওই গাড়ি দুটি অবৈধভাবে ভারতে ঢোকার চেষ্টাকালে তাদের আটক করা হয়।

পরে তল্লাশি চালিয়ে গাড়িগুলি থেকে ২৮টি একে ৪৭ রাইফেল, একটি ইনসাস রাইফেল, একটি ০.৩ ইঞ্চি কার্বাইন ও প্রচুর কার্তুজ উদ্ধার হয়েছে। পাওয়া গিয়েছে ৩৯ হাজার টাকাও। ধৃতদের জেরা করার পর পুলিশের হাতে তুলে দেয় বিএসএফ।বিএসএফের তরফে প্রকাশিত একটি বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে, মিজোরামের মামিট জেলার সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় দেশবিরোধী কার্যকলাপ চলছে বলে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছিল। তাই কিছুদিন ধরেই ওই এলাকায় তল্লাশি চালানো হচ্ছে। সোমবার রাতে বিশেষ সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে পশ্চিম ফাইলেং এলাকায় বিএসএফের ৯০ নম্বর ব্যাটেলিয়নের ডিআইজি (আইজল) কুলদীপ সিং ও ক্যাপ্টেন এসকে পিল্লাইয়ের নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়। এর ফলে দুটি অস্ত্রবোঝাই গাড়ি–সহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধৃতরা ওই অস্ত্র ও কার্তুজগুলি ভারতবিরোধী বিভিন্ন সংগঠনের হাতে তুলে দিতে যাচ্ছিল বলে জানা গিয়েছে।
বিএসএফের বিবৃতি অথবা সরকারি অন্য কোন ভাষায় বাংলাদেশ সম্পর্কে কোনো মন্তব্য না করা হলেও এ কথা জোর দিয়ে দাবি করা হয়েছে যে বাংলাদেশ ভারত সীমান্ত এলাকা থেকেই অস্ত্রবোঝাই দুটি গাড়ি আটক করা হয়েছে।এক বছরেরও বেশি সময় ধরে কূটনৈতিক টানাপোড়েন এবং বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বিপুল প্রাণহানির ঘটনায় উত্তেজনার প্রেক্ষাপটে মিজোরাম সীমান্তে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনা ঘটলো তবে এই ঘটনা দুই দেশের মধ্যে বিবদমান বিদ্যমান সম্পর্কে কোন প্রভাব ফেলবে কিনা এ নিয়ে কোনো পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close