খেলার পাতা

প্রত্যাশিত জয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলো আর্জেন্টিনা, ইংল্যান্ড ও ফ্রান্স

খেলাধুলা ডেস্ক: প্রত্যাশিত জয়ে কাতার বিশ্বকাপের শেষ আটে পা রাখলো আর্জেন্টিনা, ইংল্যান্ড ও ফ্রান্স। টূর্ণামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে অস্ট্রেলিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। ক্যারিয়ারের এক হাজারতম ম্যাচ খেলতে নেমে আর্জেন্টিনার প্রথম গোল করেন মেসি। বিশ্বকাপে এটি ছিল নকআউটে তার প্রথম গোল। ম্যাচের প্রথমার্ধেই মেসির গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৭ মিনিটে জুলিয়ান আলভারেজের গোলে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলের লিড নেয় আর্জেন্টিনা। ৭৭ মিনিটে ১ গোল শোধ করে অস্ট্রেলিয়া। বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শট মারেন গুডউইন। বক্সের মধ্যে এনজো মার্তিনেসের মাথায় লেগে বলের দিক বদলে যায়। কিছু করার ছিল না গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেসের। আত্মঘাতী গোল দেওয়া হয় মার্তিনেসের নামে। এক গোল করার পর দ্বিতীয় গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে অস্ট্রেলিয়ার পুরো দল। ফলে প্রতি আক্রমণ থেকে একের পর এক সুযোগ আসে আর্জেন্টিনার কাছে। মেসির ক্রস থেকে গোল করার দু’টি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন লাউতারো মার্টিনেস। আগামী ৯ ডিসেম্বর লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে সেমিফাইনালের লড়াইয়ে নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল মতে, আগের প্রজন্মের মতো এই নেদারল্যান্ডস ওতোটা প্রতিভাধর না হলেও কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে আর্জেন্টিনাকে।

হেসে খেলে সেনেগালকে হারিয়ে শেষ আটে ইংল্যান্ড

এই প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ইংল্যান্ড ও সেনেগাল। কিন্তু ‘প্রথম’ মোকাবিলাটা বিশ্বকাপের শেষ ষোলোতে হওয়ায় সেটি দুই দলের জন্যই স্মরণীয় হয়ে রইল। ইংল্যান্ড এই ম্যাচটিকে মনে রাখবে কাতার বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল-যাত্রার মঞ্চ হিসেবে, সেনেগালের কাছে এটি হয়ে থাকবে দীর্ঘ দিন তাড়িয়ে বেড়ানো এক দুঃসহ স্মৃতি হিসেবেই। দারুণ একটা লড়াইয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েও যে তারা কুড়ি বছর আগের শেষ আটের স্বপ্নযাত্রার পুনরাবৃত্তিটা করে দেখাতে পারেনি। আল বায়ত স্টেডিয়ামে অনেকটা হেসে খেলেই সেনেগালকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে হ্যারি কেইনের ইংল্যান্ড। শেষ আটে ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স।

এমবাপের জোড়া গোলে পোল্যান্ডকে হারিয়ে শেষ আটে ফ্রান্স

কিলিয়ান এমবাপ্পের জোড়া গোলে পোল্যান্ডকে ৩-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উন্নীত হলো ফ্রান্স। রোববার কাতারের আল সুমামাহ স্টেডিয়ামে রাত ৯টায় শুরু হওয়া ম্যাচে ফ্রান্সের জয়ে জোড়া গোল করেন এমবাপ্পে। দলের জয়ে অন্য গোলটি করেন অলিভিয়ে জিরু। খেলার শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে ফ্রান্স। ম্যাচের ৪৪ মিনিটে অলিভিয়ে জিরুর গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। প্রথমার্ধের বিরতি থেকে ফিরে আরো আক্রমণাত্মক হয়ে খেলে ফ্রান্স। খেলার ৭০ এবং যোগ হওয়া প্রথম মিনিটে এমবাপ্পে পরপর দুটি গোল করেন। তার জোড়া গোলে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। খেলার অতিরিক্ত সময়ে ডি বক্সের মধ্যে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় পোল্যান্ড। পেনাল্টি থেকে গোল করে হারের ব্যবধান (৩-১) কিছুটা কমান পোল্যান্ডের তারকা ফুটবলার লেভানডভস্কি। কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ড দলের মুখোমুখি হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। রাশিয়া বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা দুর্দান্ত ফুটবল খেলছে। গ্রুপ পর্ব থেকে শুরু করে প্রি কোয়ার্টারেও এমবাপ্পে, গ্রিজম্যানরা দারুণ ছন্দে রয়েছে। ইংল্যান্ডও তাই। তাইতো দুই দলের ম্যাচটা ফাইনাল বা সেমিফাইনালের ‘ড্রেস রিহার্সেল’ হিসেবে ধরছেন কেউ কেউ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close