নিউজ

সিলেটের ব্যবসায়ী ও সমাজসেবী মিসবাহুল ইসলাম চৌধুরীর ইন্তেকাল: পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া কামনা

লণ্ডন, ২৬ অক্টোবর – সিলেট শহরের ব্যবসায়ী ও সমাজসেবী মিসবাহুল ইসলাম চৌধুরী ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন।
গত ২৪ অক্টোবর, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিনি ঢাকার ল্যাব এইড হাসপাতালে মারাযান। হার্টের সামান্য অসুস্থতা নিয়ে তিনি সকালে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে স্বাভাবিক ভাবেই হাসপাতালে যান। কিন্তু হাসপাতাল পৌছার পর আকস্মিক ভাবে মৃত্যুবরন করেন। নগরীর আম্বরখানায় বসবাসকারী মিসবাহুল ইসলামের গ্রামের বাড়ী সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার দর্পনগর গ্রামে। তিনি নগরীতে স্যামসাং ফোনের একটি শো রুমের ডিরেক্টর ছাড়াও একাধিক ব্যবসায় যুক্ত ছিলেন। সমাজ-সংস্কৃতির সক্রিয় মানুষ হিসেবে ছিলেন সুপরিচিত। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৫২ বছর।
মরহুম মিসবাহ স্ত্রী, ছোট্র দুটি মেয়ে ও তরুণ বয়সি ছেলেসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখেগেছেন। শনিবার রাত সাড়ে ১০ টায় সিলেট নগরীরর মানিকপীর কবরস্থান প্রাংগনে ১ম জানাযা এবং রোববার সকাল ১১টায় দর্পনগর বাল্লাগ্রাম মসজিদে ২য় নামাজে জানাযা অনুষ্টিত হবে। পরে তাকে পারিবারিক গোরস্তানে দাফন করা হবে। যার পাশেই রয়েছে তার প্রতিষ্ঠিত একটি হাফিজি মাদ্রাসা। ফান্স প্রবাসী মরহুমের বড় ভাই মিনহাজ চৌধুরী ও ছেলে নাফিজ চৌধুরী পরিবারের পক্ষ থেকে সকলের কাছে দোয়া কামান করেছেন।
এছাড়া লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সেক্রেটারি ও চ্যানেল এস’র চীফ রিপোর্টার মুহাম্মদ জুবায়ের তাঁর ভগ্নিপতি মিসবাহুল ইসলাম চৌধুরীর রুহের মাগফেরাত কামনা করে লন্ডন ও বাংলাদেশের বন্ধুবান্ধবসহ পরিচিত মহলের কাছে দোয়া কামনা করেছেন।

লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের শোকঃ
লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সেক্রেটারী মুহাম্মদ জুবায়ের এর ভগ্নিপতি  সিলেটের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মিছবাহুল ইসলাম চৌধুরীর ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব প্রেসিডেন্ট এমদাদুল হক চৌধুরী ও ট্রেজারার আসম মাসুম ।এক শোক বার্তায় ক্লাব নেতৃবৃন্দ বলেন, মিছবাহ চৌধুরী সিলেটে একজন সদালাপী ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছিলেন ।তার ইন্তেকালে পরিবারের ক্ষতি অপূরণীয় ।
ক্লাব নেতৃবৃন্দ মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close