আন্তর্জাতিকনিউজহোম

আদানি গ্রুপের স্পনসর করা সাহিত্য পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করলেন তামিল কবি

সুরমা ডেস্ক। পুরস্কারের মূল স্পন্সর আদানি গ্রুপ, সে কারণে পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করলেন তামিল কবি সুকিরথারানি। সংবাদমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফকে তিনি বলেন, এ পুরস্কার নিলে তা তার আদর্শ, লেখালেখি ও দর্শনের পরিপন্থী হতো। সুকিরথারানি বলেন, ‘আমি যে দর্শনে বিশ্বাস করি এবং যে দর্শন জীবনে মেনে চলি, এই পুরস্কার নিলে তারই বিরুদ্ধাচরণ করা হবে।’

গত ৪ ফেব্রুয়ারি নিজের ফেসবুক পেজে এ পুরস্কার প্রত্যাখ্যানের ঘোষণা দেন তিনি। তামিল ভাষায় লেখা ওই পোস্টে তিনি বলেন: ‘আমি গতকালই জানতে পারলাম, এ অনুষ্ঠানের মূল স্পন্সর আদানি। আদানি গ্রুপের আর্থিক সহায়তা নেওয়া কোনো সংগঠন বা অনুষ্ঠান থেকে আমি কোনো পুরস্কার নিয়ে খুশি হতে পারব না।’ এ কারণে আদানির স্পন্সরে নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস গ্রুপের ওই পুরস্কার না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানান তামিলনাড়ুর এ দলিত কবি। 

নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ভারতের নানা প্রান্তের বারোজন কৃতী নারীকে এ পুরস্কারের জন্য মনোনীত করেছিলেন। তাদের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত ছিলেন দলিত সাহিত্য নিয়ে দীর্ঘদিন কাজ করা তামিল কবি সুকিরথারানিও। পুরস্কার গ্রহণের বিষয়ে প্রথমে সম্মতিও জানিয়েছিলেন সুকিরথারানি। কিন্তু পরে যখন জানতে পারেন এ পুরস্কারটি আদানি গ্রুপ ‘স্পনসর’ করছে, তখন তা প্রত্যাখ্যান করেন। 

সুকিরথারানি বিশেষ করে তামিলনাড়ুর দলিত নারীদের জীবন ও জীবনাচার নিয়ে কাজ করেন। তিনি পেশায় শিক্ষকও। এ পর্যন্ত মোট ছয়টি কবিতার সংকলন প্রকাশিত হয়েছে তারা। সুকিরথারানির অনেক কবিতা তামিলনাড়ুর বিভিন্ন কলেজে পড়ানো হয়। ইংরেজি, মালয়ালাম, কন্নড়, হিন্দি ও জার্মান ভাষায়ও অনুবাদ হয়েছে তার কবিতা। 

২০২১ সালে দিল্লি ইউনিভার্সিটি সিলেবাস থেকে সুকিরথারানির কবিতা বাদ দিলে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। এদিকে আদানি গ্রুপ গত কয়েক সপ্তাহ ধরে শেয়ার বাজারে কারচুপি ও জালিয়াতির অভিযোগে সমালোচনার কেন্দ্রে রয়েছে।
 

ট্যাগ
Sheikhsbay

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close