নিউজবাংলাদেশহোম

কুমিল্লার সমাবেশকে কেন্দ্র করে ঘরে ঘরে তল্লাশি ও গণগ্রেপ্তার

সুরমা প্রতিবেদন।
২৪ নভেম্বর, ঢাকা অফিস। বিএনপি’র কুমিল্লা মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন এলাকায় বিএনপি নেতাকর্মীদের ঘরে ঘরে তল্লাশি ও গণহারে গ্রেপ্তার চলছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঢাকা থেকে আমাদের সংবাদদাতা জানিয়েছেন, গত বুধবার শুধু চাঁদপুর জেলার দুটি উপজেলা থেকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে ১৩ জন নেতাকর্মীকে। এর মধ্যে হাজীগঞ্জ উপজেলায় নয়জন ও শাহরাস্তি উপজেলায় চারজন।

সংবাদদাতা আরও জানাচ্ছেন, হাজীগঞ্জ উপজেলা থেকে গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, আলহাজ্ব ইমাম হোসেন (সিনিয়র সহ সভাপতি, হাজীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি), মোঃ শামীম মিয়াজী (সাংগঠনিক সম্পাদক, ৪ নং কালচো ইউনিয়ন বিএনপি), মোঃ আব্দুল হান্নান (সিনিয়র সহ সভাপতি ৭ নং ইউনিয়ন যুবদল), মোঃ সোহেল পাটওয়ারী (সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক ছাত্রনেতা ৮ নং হাটিলা ইউনিয়ন যুবদল), মোঃ বাবলু (সাবেক ছাত্রনেতা ২ নং বাকিলা ইউনিয়ন), মোঃ ফরহাদ খান সুমন ( সিনিয়র সহ-সভাপতি, ৪ নং কালচো ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দল), মোঃ মহিউদ্দিন মহিন (যুবদল ৫ নং ওয়ার্ড, সদর), মোঃ শান্ত মজুমদার (৯ নং ওয়ার্ড হাজিগঞ্জ পৌরসভা), মোহাম্মদ জুয়েল রানা (৮ নং ওয়ার্ড হাজিগঞ্জ পৌর বিএনপি)।

এছাড়া শাহরাস্তি উপজেলায় গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মোঃ বেলায়েত হোসেন সুমন (৩ নং ওয়ার্ড যুবদল,শাহরাস্তি পৌরসভা), মোঃ হাসান (সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, শাহরাস্তি পৌর বিএনপি), মোহাম্মদ মোস্তফা (সাবেক সভাপতি ৯ নং ওয়ার্ড সুচীপাড়া উত্তর বিএনপি), মোঃ মেশকাত হোসেন (সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ৩ নং ওয়ার্ড সুচিপাড়া উত্তর বিএনপি)।

শাহরাস্তি পৌর বিএনপি সভাপতি মোঃ আবুল খায়ের সিএ ও হাজিগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রহিম পাটওয়ারী গ্রেপ্তারকৃত নেতাকর্মীদের তথ্য জানিয়ে বলেন, উপজেলাগুলোতে ঘরে ঘরে তাদের দলীয় নেতা কর্মীদের আটক করার জন্য তল্লাশি করা হচ্ছে।

তারা বলেন, গ্রেফতার আতঙ্কের পরও বিক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ দলে দলে কুমিল্লা সমাবেশে যোগ দেয়ার জন্য তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। গণগ্রেফতার ও ঘরেঘরে তল্লাশির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তারা বলেন, কুমিল্লা মহাসমাবেশকে সফল করে সরকারের এই নির্যাতনের জবাব দেয়া হবে।

নিউজ

সম্পরকিত প্রবন্ধ

এছাড়াও চেক করুন
Close
Back to top button
Close
Close