নিউজ

১৫ মানবাধিকার সংগঠন ৩০ আগস্ট লণ্ডনে  বিক্ষোভ করবে 

গুমের সাথে জড়িতদের একদিন বিচার হবে

।। সুরমা ডেস্ক ।।
লণ্ডন, ১৯ আগস্ট : আগামী ৩০ আগষ্ট গুমের শিকার মানুষদের প্রতি সহানুভুতি ও গুম প্রতিরোধ সচেতনতা তৈরি করতে জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক দিবস। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান ফ্যাসিবাদি সরকার ভিন্নমতের রাজনৈতিক নেতা-কর্মী ও মানবাধিকার কর্মীদের নিপীড়ন এবং গুম-খুনের বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করতে বাংলাদেশী কমিউিনিটির সমন্বয়ে বিভিন্ন দেশে গুরুত্বের সাথে ৩০ আগষ্ট পালন করতে উদ্যোগ নিয়েছে সাউথ এশিয়ান পলিসি ইনিশিয়েটিব। এই উদ্যোগের অংশ হিসাবে সোমবার (১৫ আগষ্ট) লন্ডনের বিভিন্ন সামাজিক ও মানবাধিকার সংগঠনের এক যৌথ প্রস্ততি সভা পূর্ব লন্ডনের একটি কমিউনিটি হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রস্তুতি সভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় বাহিনীর হাতে গুমের শিকার প্রতিটি ঘটনার জন্য শেখ হাসিনা দায়ী। বক্তারা বলেন, শেখ হাসিনাসহ গুমের সাথে জড়িত আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর প্রতিটি সদস্যের বিচার একদিন বাংলাদেশে হবে।

প্রফেসর আবদুল কাদির সালেহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত যৌথ সভায় ৩০ আগষ্ট বৃটিশ পার্লামেন্ট হাউজের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের সিদ্ধান্ত হয়। ৩০ আগষ্ট বেলা ২টায় এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে পার্লামেন্ট হাউজের সামনে। বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশে রাষ্ট্রীয় নিপীড়ন ও গুমের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে সভায় সকলেই একমত হন। 
যৌথ সভায় উপস্থিত ছিলেন, যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সভাপতি ও সিটিজেন মুভমেন্টের আহ্বায়ক এম এ মালেক, সেইভ বাংলাদেশের আহ্বায়ক ব্যারিষ্টার নজরুল ইসলাম, মুফতি শাহ সদর উদ্দিন, ড. এম এ আজিজ, সোসাইটি ফর ডেমোক্রেটিক রাইটস-এর সভাপতি ব্যারিষ্টার ইকবাল হোসাইন, সেক্রেটারি ব্যারিষ্টার আলিমুল হক লিটন, সপ্তাহিক সুরমা সম্পাদক শামসুল আলম লিটন, রাইট কনসার্ন ইউকে’র শফিক খান, নিরাপদ বাংলাদেশ চাই ইউকে’র সভাপতি মুসলিম খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মোর্শেদ আহমদ খান, আলিম উদ্দিন, হিউম্যানিটি ক্লাব উইকে সভাপতি সৈয়দ মোজাক্কির আহমদ, মাওলানা মোহাম্মদ আনাস, পিস ফর বাংলাদেশ-এর ডলার বিশ্বাস, তরিকুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট সাইফুর পারভেজ, খেলাফত মজলিসের মাওলানা আনিসুর রহমান প্রমূখ। 

যৌথ সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সিটিজেন মুভমেন্ট ইউকে, সোসাইটি ফর ডেমোক্রেটিক রাইটস (এসডিআর) ফাইট ফর রাইটস, ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যানিটি ক্লাব, জাষ্টিজ ফর বাংলাদেশ, অনলাইন অ্যাকিভিষ্ট ফোরাম ইউকে, নিরাপদ বাংলাদেশ চাই (এনবিসি), সলিডারিটি ফর হিউম্যান রাইটস ইউকে, স্ট্যাণ্ড ফর বাংলাদেশ, সাপোর্ট লাইফ ইউকে, উইনিভার্সেল ভয়েস ফর জাষ্টিস, ভয়েস ফর জাষ্টিস অ্যাণ্ড রাইট পিজিওন ইন্টারন্যাশনালের যৌথ উদ্যোগে ৩০ আগষ্ট বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করবে । 
উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক গুম খুন প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে সাউথ এশিয়ান পলিসি ইনিশিয়েটিবের উদ্যোগে বাংলাদেশে ফ্যাসিবাদি শেখ হাসিনা সরকারের আইনশৃঙ্খলা-রক্ষাকারী বাহিনী ধরে নিয়ে যাওয়ার পর গুমের শিকার মানুষদের খুঁজে বের করার দাবীতে লন্ডন ছাড়াও নিউ ইয়র্ক এবং সিডনিতে বিক্ষোভ সমাবেশ হবে। 

রাষ্ট্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করে ভিন্নমতের রাজনীতিকদের গুমের অপরাধে শেখ হাসিনার বিচারের দাবীতে জানানো হবে এই সমাবেশে । গণতন্ত্র ও মানবাধিকারে বিশ্বাসী প্রতিটি মানুষকে এই সমাবেশ গুলোতে অংশ নেওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে লন্ডনের যৌথ সভা থেকে। 

উল্লেখ্য, শেখ হাসিনা ক্ষমতা গ্রহনের পর থেকে দেশে ভিন্নমতের হাজারো নেতা-কর্মীকে রাষ্ট্রীয় বাহিনী ধরে নিয়ে গুম করেছে। বছরের পর বছর ধরে তাদের পরিবার জানে না, আপনজনরা কোথায় কিভাবে আছেন। বাবা অপেক্ষায় আছেন ছেলে একদিন মুক্তি পেয়ে ফিরবে। স্ত্রী অপেক্ষায় আছেন স্বামী ফিরবে। সন্তানরা বাবার জন্য অপেক্ষা করছেন। কিন্তু বছরের পর বছর পার হয়ে যাচ্ছে। রাষ্ট্রীয় বাহিনী তাদের কোথায় রেখেছে সেটাও কেউ জানে না।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close