আন্তর্জাতিকনিউজ

করোনাকালে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসাবে ফরাসি নাগরিকত্ব পেলেন হাজারো বিদেশি কর্মী

।। শামসুল ইসলাম।।

লণ্ডন, ০১ অক্টোবর – করোনাকালে স্বাস্থ্য খাতসহ বিভিন্ন খাতে বিশেষ অবদানের  জন্য ফরাসি সরকার বিদেশীকর্মীদের নাগরিকত্ব প্রদান করেছেন। সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নাগরিকত্ব বিষয়ক প্রতিনিধি মার্লিন শিয়াপ্পা জানিয়েছেন ধারাবাহিক প্রক্রিয়ার প্রথম ধাপে সামনের সারির (ফ্রন্ট লাইনার) ১২ হাজারেও বেশি বিদেশীকর্মীদের নাগরিকত্ব প্রদান করা হয়েছে।

এর আগে তিনি ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে কোভিড-১৯ সংকটের সময় বিদেশি কর্মীদের জন্য যারা প্রথমসারিতে কাজ করেছেন তাদের নাগরিকত্ব প্রদানের প্রক্রিয়াটি ত্বরান্বিত ও সহজ করা হবে। বিদেশি শ্রমিকদের যারা করোনাভাইরাস মহামারি চলাকালীন কাজ করেছেন “সম্মুখ সারিতে” ও “জাতির প্রতি তাদের দায়বদ্ধতা দেখিয়েছেন” সেই সব বিদেশি নাগরিকদের ন্যাচুরালাইজেশনের আওয়তায় নিয়ে আসা হবে বলে জানিয়েছিলেন।

বিভিন্ন ফরাসি গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায় এই আবেদন গ্রহণ প্রক্রিয়া চালু হওয়ার পর থেকে ফ্রান্সজুড়ে ১৬৩৮১টি ফাইল প্রিফেকচারে জমা পড়েছে। ইতোমধ্যে ১২০১২ বিদেশি ফরাসি নাগরিকত্ব পেয়েছেন; যাতে ফ্রান্সের মানবতা নামক রাজধানীর খেতাবটি আরো সমৃদ্ধ হলো।

প্রসঙ্গত ফরাসী নাগরিকত্ব আবেদনের ন্যুনতম যোগ্যতা হল, একজন সাধারণ বিদেশি কর্মীকে একনাগাড়ে অন্তত পাচ বছর ফ্রান্সে বসবাস করতে হবে। যদিও রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থীর ক্ষেত্রে এ সময় বাধ্যবাধকতা নেই। কিন্তু করোনা কালে যারা সম্মুখ লাইনে কাজ করছেন তাদের আবেদনগুলো দেখার ক্ষেত্রে বসবাসের সময়কাল দুই বছরে কমিয়ে আনা হয়েছে। বিশেষ এই কভিড আইনে যেসব কর্মীদের জাতীয়তা দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে আছেন- স্বাস্থ্যকর্মী, নিরাপত্তাকর্মী, রক্ষণাবেক্ষণ কর্মকর্তা, শিশুদের দেখাশোনাকারী, ক্যাশিয়ার, হোমহেল্পার, আবর্জনা সংগ্রহকারী প্রভৃতি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

এছাড়াও চেক করুন
Close
Back to top button
Close
Close