নিউজ

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করতে পারেন! কারণ অর্থসঙ্কটে চলছে না পরিবার

।। সাজু আহমদ ।।
লণ্ডন, ১৯ অক্টোবর – পত্রিকায় লেখালেখি, বিভিন্ন সেমিনার ও সিম্পুজিয়াম-এ বক্তৃতা দিয়ে রোজগার করেছেন কাড়ি  কাড়ি টাকা। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর প্রায় দেড় কোটি টাকার বার্ষিক চাকরি তাকে ফেলে দিয়েছে নিদারুণ অর্থকষ্টে! প্রাক্তন স্ত্রী, বর্তমান প্রেমিকা ও ছয় বাচ্চার ভরণপোষণ করতে গিয়ে নিদারুণ অর্থকষ্টে পড়ে আগামী শরতে প্রধানমন্ত্রী পদ ছেড়ে দেয়ার চিন্তা করছেন ব্রিটেনের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন—এই মর্মে  বিলেতের মূলধারার পত্রিকাতে খবর বেরিয়েছে।

লণ্ডনের সাবেক মেয়র ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শুধু দৈনিক টেলিগ্রাফ পত্রিকায় কলাম লিখে মাসে প্রায় ২৩ লক্ষ টাকা আয় করতেন। দৈনিক মিররের এক খবর অনুযায়ী এক মাসে দুইটি বক্তৃতা দিয়ে প্রায় এক কোটি ষাট লক্ষ টাকার সমপরিমাণ অর্থ আয় করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে।

কিন্তু বর্তমানে এক ছেলেকে বিশ্ববিখ্যাত কলেজ ইটনে ভর্তি করতে হিমশিম খাচ্ছেন। কারণ সেখানে বছরে তাকে দিতে হবে প্রায় ৪৩ লক্ষ টাকার সমপরিমাণ অর্থ।

অপরপক্ষে বিবাহ বিচ্ছেদ আইন অনুযায়ী তাঁর সাবেক স্ত্রীকে ভরণ-পোষণ বাবদ মোটা অংকের অর্থ পরিশোধ করতে হয়।

তাই ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আসলে এবং ব্রেক্সিট কার্যক্রম শেষ হলে আগামী শরতে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করার চিন্তাভাবনা করছেন বরিস জনসন। সম্প্রতি এমনই প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে বৃটেনের মূলধারার পত্রিকাগুলোয়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close