নিউজ

ডা. ফিরোজ কামাল’র করোনা জয়ের গল্প

১২০ আইসিইউ’তে কেটেছে

।। সুরমা প্রতিবেদন ।।
লণ্ডন, ২ অক্টোবর – বিলাতে বাংলাদেশ কমিউনিটির বিশিষ্ট চিকিৎসক ও লেখক গবেষক ডাক্তার ফিরোজ মাহবুব কামালের করোনা জয়ের গল্প রীতিমতো বিস্ময়কর।
ডা. ফিরোজ মাহবুব কামাল ১৪৬ দিনের করোনা লড়াই শেষে গত ১৭ সেপ্টেম্বর হাসপাতাল ছেড়েছেন। তিনি ১২০দিন এসেক্সের কিং জর্জ হাসপাতলে আই সি ইউ’তে নিবিড় পর্যবেক্ষণে ছিলেন। এর মধ্যে একবার চিকিৎসক তাঁকে বাঁচানোর আশা ছেড়ে দিয়ে পরিবারের সদস্যদের শেষবারের মতো দেখার জন্যও বলে দেন। দীর্ঘ কয়েক দশকে বিলাতে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। জীবন-মৃত্যুর লড়াই মহান সৃষ্টিকর্তার প্রদত্ত পরীক্ষা। জীবন-মৃত্যুর লড়াই থেকেও মানুষ তার জীবনের মাহাত্ম্য এবং বেঁচে থাকার তাৎপর্য বুঝতে পারেন । হাসপাতাল ছাড়ার দুই সপ্তাহ পরেও তিনি এখনও বেশ দুর্বলবোধ করছেন, কিন্তু সেরে উঠছেন ধীরে ধীরে। মাসখানেকের মধ্যে আবারো হাসপাতালে স্বাভাবিক চিকিৎসাকর্মে ফিরে যাবেন আশা করছেন। হাসপাতালে রোগীদের চিকিৎসার পাশাপাশি পুরোদমে শুরু করবেন লেখালেখি ।
ফিরোজ মাহবুব কামাল বিলেতের জীবনযাত্রা, আন্তর্জাতিক ইস্যু্র পাশাপাশি বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ার ইতিহাস ও রাজনীতি বিষয়ে গভীর পর্যবেক্ষণ, বিশ্লেষণ ও গবেষণামূলক প্রবন্ধ লিখেছেন।  চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি দুই হাতে লিখে চলেছেন । পাঠক নন্দিত লেখক ডাক্তার ফিরোজ কামাল করোনামুক্ত হয়ে নতুন উদ্দীপনায় আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থ প্রকাশে হাত দিয়েছেন। সপ্তাহিক সুরমাকে তিনি জানান, তাঁর এই গ্রন্থের শিরোনাম হবে “আত্মঘাতী বাঙালি মুসলিম”। বিভিন্ন সময়ে এ বিষয়ে তিনি অনেক প্রবন্ধ লিখেছেন, তা থেকে কিছু কিছু নির্বাচিত প্রবন্ধের পাশাপাশি আরও কিছু নতুন প্রবন্ধ যোগ করবেন প্রকাশিতব্য এই গ্রন্থে। 
 ফিরোজ মাহবুব কামাল এখনো দুর্বলতার কারণে দীর্ঘ সময় কথা বলতে পারেন না বলে তাঁর অনেক প্রতিক্রিয়া অব্যক্ত রয়ে গেছে। মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়া এই দিনগুলোতে দোয়া করার জন্য তিনি এবং তার পরিবারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ ছাড়াও বিলেত কমিউনিটি এবং বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে থাকা তার বন্ধু গুনগ্রাহী স্বজন ও পাঠক মহল সকলের কাছে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। এছাড়া তার জন্য এবং মহামারীতে নিহত এবং চিকিৎসাধীন সকলের জন্য দোয়া অব্যাহত রাখার অনুরোধ করেছেন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close