নিউজ

করোনা: আবার ভয়াবহতার দিকে বৃটেন, দিনে ২শ মৃত্যু ও ৫০ হাজার সংক্রমণের আশঙ্কা

জরুরী কোবরা মিটিং ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী

।। সুরমা প্রতিবেদন ।।
লণ্ডন, ২১ সেপ্টেম্বর – করোনা ভাইরাস আরো ভয়াবহতা নিয়ে আসছে বৃটেনে। এখনই নিয়ন্ত্রণ না করতে পারলে প্রতিদিন শত শত মৃত্যু ও হাজার হাজার সংক্রমণের ফের তাণ্ডব শুরু হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন বিজ্ঞানীরা। প্রথমবারের মতো ইউরোপ থেকে মাত্র কয়েক সপ্তাহ পেছনে রয়েছে বৃটেন। কোনো ধরনের বাধা ছাড়াই অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে ৫০,০০ নতুন করোনাভাইরাস কেস বৃটেন দেখতে পাবে বলে সরকারের প্রধান বৈজ্ঞানিক পরামর্শদাতা সতর্ক করেছেন।
স্যার প্যাট্রিক ভ্যাল্যান্স বলেছেন, একমাস পরে প্রতি দিন প্রায় ২শ’ জন মৃত্যুর কারণ হতে পারে। বিষয়টির করণীয় নিয়ে কোবরা মিটিং ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। আগামী কাল মঙ্গলবার স্বাস্থ‍্য বিশেষজ্ঞদের নিয়ে ডাউনিং স্ট্রিটে বসবে এই কোবরা মিটিং।

প্রধানমন্ত্রী বোরিস জনসন ইংল্যাণ্ডে আরও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন কিনা তা বিবেচনা করার পরে ডাউনিং স্ট্রিটের ব্রিফিং এ তথ্য এলো।
রবিবার যুক্তরাজ্যে দৈনিক হিসেবে আরও ৩,৮৯৯ জনের সংক্রমণ এবং ১৮ জন মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
সরকারের প্রধান মেডিকেল উপদেষ্টা প্রফেসর ক্রিস হুইটির পাশাপাশি বক্তব্য রেখে স্যার প্যাট্রিক বলেছেন: “এই মুহুর্তে আমরা মনে করি মহামারীটি প্রতি সাত দিন পর পর প্রায় দ্বিগুণ হচ্ছে।
আর এটি যদি অবিরাম অব্যাহত থাকে এবং প্রতি সাত দিন পর পর এটি দ্বিগুণ হয়ে যায় তাহলে অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে প্রতিদিন প্রায় ৫০,০০-এর মতো সংক্রমণ হওয়ার ধারা আটকানো যাবে না।
আর গড়ে প্রতিদিন ৫০,০০০ আক্রান্তের ধারা অব্যাহত থাকলে এক মাস পরে অর্থাৎ নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে বলা যায়, প্রতিদিন ২শ’রও বেশি লোকের মৃত্যু হতে পারে।
“অতএব, চ্যালেঞ্জ হলো যে সাত দিনে সংক্রমণ দ্বিগুণ হওয়ার বিষয়টি কীভাবে রোধ করা যায় তা নিশ্চিত করা।
এই বিজ্ঞানী জোর দিয়ে বলেন, সমক্রমণ রোধে গতি প্রয়োজন, এটির জন্য এখনই তড়িৎ বেগে করণীয় নির্ধারণ প্রয়োজন এবং এটির বেড়ে যাওয়ার গতি নামিয়ে আনতে সক্ষম হওয়ার জন্য এটি পর্যাপ্ত ও সঠিক পরিকল্পনা প্রয়োজন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

Back to top button
Close
Close