নিউজ

করোনা পরীক্ষা

বহু নির্বাচনী (মাল্টিপল চয়েস) পরীক্ষা: করোনা ভাইরাস
যাদের এই পরীক্ষায় অংশ নেওয়া উচিত: বাংলাদেশ সরকারের নেতানেত্রীগণ
সময়: ৯০ মিনিট (একটি পূর্ণ কার্যদিবস)
নম্বর: সঠিক উত্তরে কোনো নম্বর দেওয়া যাবে না। নিয়ম অমান্যকারীদের র‌্যাব দিয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হবে।
পাশ নম্বর: আপনার বিবেক জিজ্ঞেস করুন (যদি তার কিছু অবশিষ্ট থাকে)
সাধারণ নির্দেশনা: এই পরীক্ষায় অভিধান, এনসাইক্লোপিডিয়া, ক্যালকুলেটর, বাংলাদেশ টেলিভিশন ও ফিল্ম ম্যাগাজিন ব্যবহার করা যেতে পারে। এছাড়া আপনি চা বিক্রেতা, আওয়ামী লীগের বুদ্ধিজীবি (বা উভয়কে), অথবা সরকারের মন্ত্রীদের পরামর্শ নিতে পারেন। সাহায্যের জন্য আপনি “কোনো বন্ধুকে ফোন করতে পারেন” কিন্তু বন্ধুটি দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলের হলে কেবল একজনকে কল করা যাবে।
সহায়ক ইঙ্গিত: বেশিরভাগ প্রশ্নের ক্ষেত্রে কোনো একটি “সঠিক” উত্তর নেই।

নিম্নের প্রতিটি প্রশ্নের জন্য আপনি যে উত্তরটিকে সবচেয়ে প্রাসঙ্গিক মনে করেন সেটি বেছে নিন। তবে যারা নিজেদেরকে পৃথিবীতে জবাবদিহিতার ঊর্ধ্বে মনে করেন, তারা অনুগ্রহ করে এই পরীক্ষার যেকোনো প্রশ্ন বা সবগুলো প্রশ্ন আগ্রাহ্য করতে পারেন।

  1. করোনা ভাইরাস (Covid-19) কী?
    1. বাংলাদেশের বিরোধী দলগুলোর একটি গভীর ষড়যন্ত্র।
    1. ইংল্যান্ড ও আমেরিকায় ভ্রমণে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিকারী একটি ভাইরাস।
    1. বাংলাদেশের ধনী ও ক্ষমতাবানদের আক্রান্ত করতে পারে এমন একটি ভাইরাস।
    1. এই সরকারকে কেউ টলাতে পারবে না বলে যারা অহংকার করে তাদের প্রতি উপযুক্ত একটি জবাব।
  • করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারি পদক্ষেপ ২৫ মার্চ পর্যন্ত কেন বিলম্বিত হয়েছিলো?
    • কারণ আওয়ামী লীগ করোনা ভাইরাসের চেয়ে শক্তিশালী।
    • কারণ তথাকথিত একটি জন্মদিনের উৎসবে মহামান্য বিদেশী আমন্ত্রিতদের আমরা ভয় পাইয়ে দিতে চাইনি।
    • আমরা ভেবেছিলাম চাইনিজ রেস্টুরেন্টে যাওয়া এবং চীনাবাদাম খাওয়া বন্ধ করলেই এই ভাইরাস থেকে মুক্তি মিলবে।
    • কারণ আমাদের সরকারি দপ্তরে ফাইল নড়েচড়ে না, এবং করোনা ভাইরাস আমাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একজন কনিষ্ঠ কর্মকর্তার টেবিলে কয়েক সপ্তাহ ধরে পড়ে ছিলো কারণ ফাইলটিতে “অতি জরুরি” লেখা ছিলো না।
  • আওয়ামী লীগ কিভাবে করোনা ভাইরাসের চেয়ে শক্তিশালী?
    • কারণ “আওয়ামী লীগ ভাইরাস” করোনা ভাইরাসের চেয়ে অনেক বেশি মানুষকে কষ্ট দিয়েছে ও হত্যা করেছে।
    • এন্টিসেপটিক ও সূর্যালোকে আওয়ামী লীগ ভাইরাস মরে না কিন্তু করোনা ভাইরাস মরে যায়।
    • কেউ সতর্কতা অবলম্বন করে এড়াতে চাইলেও আওয়ামী লীগ ভাইরাস তার ক্ষতি করতে পারে।
    • উপরের সবকটি।
  • “সাধারণ ছুটির” (“লকডাউন”-এর বদলে) উদ্দেশ্য কী এবং করোনা ভাইরাস আক্রান্ত এলাকা ঢাকা থেকে মানুষকে জেলায়-জেলায় পাঠানোর উদ্দেশ্য কী ছিলো?
    • আমরা ছুটি ঘোষণার মাধ্যমে মানুষের জন্য এই সময়টিকে আনন্দঘন করতে চেয়েছি যাতে মানুষ সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকে।
    • আমরা অন্যান্য দেশকে অনুকরণ করতে চাইনি।
    • এই ধারণাটি কোন বুদ্ধিমান লোকের মাথা থেকে এসেছে সেটি আমরা এখনো জানিনা।
    • সেসময় এটিকে উত্তম ধারণা মনে হয়েছিলো।
  • করোনা ভাইরাস নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অসংখ্য সতর্কবার্তা কেন আগ্রাহ্য করা হয়েছিলো?
    • বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাটা আবার কে? একটি স্বাধীন, সার্বভৌম দেশের প্রতি কোন সতর্কবার্তা ইস্যু করার অধিকার তাদের নেই। এসব বিবৃতির জন্য তারা সম্ভবত বিরোধী দলের কাছ থেকে টাকাপয়সা খেয়েছে?
    • আমরা একটি গরিব, উন্নয়নশীল দেশ এবং আমি কোথায় যেন পড়েছি যে ভাইরাসটি কেবল ধনীদেশগুলো আক্রমণ করে এবং এটি গরম আবহাওয়ায় টিকে না।
    • আমরা নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ এবং কারো সাহায্য ছাড়াই আমরা ভাইরাসটি মোকাবেলা করতে পারবো।
    • কারণ আমাদের সরকারে ফাইলপত্র নড়ে না।
  • করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করতে কি কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে?
    • কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।
    • হাসপাতালগুলোকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে শ্বাসপ্রশ্বাস-জনিত রোগে কেউ মারা গেলে সে “হৃদরোগে” মারা গেছে বলতে হবে।
    • চিকিৎসা সরঞ্জাম পরিবেশকদেরকে নিম্নমানের মাস্ক ও পিপিই তৈরি করতে বলা হয়েছে যাতে সেগুলো বেশি দাম দেখিয়ে কেনা যায় এবং “আসল” মাল হিসেবে প্যাকেট করে হাসপাতালগুলোতে সরবরাহ করা যায়।
    • রোগীরা যাতে ভয় না পায় সেজন্য ডাক্তার ও মেডিকেল স্টাফদের পিপিই পরতে নিষেধ করা হয়েছে।
  • করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করার জন্য কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে?
    • কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।
    • পরীক্ষা করার নতুন কিটগুলো কেবল অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের (ভিআইপি) জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে।
    • দেশে কম দামী পরীক্ষা কিট তৈরি ও তার অনুমোদন আটকে দিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হয়েছে।
    • কিছু দামী পরীক্ষা কিট আমদানি করা হচ্ছে (দ্বিগুণ দামে)।
  • ভেন্টিলেটর কী?
    • একটি দামি চিকিৎসা উপকরণ যা সবার অলক্ষ্যে আসল দামের চেয়ে তিনগুণ দামে আমদানি করা যায়।
    • ঘরে বায়ু চলাচল বাড়ানোর জন্য বাংলাদেশে ভবনগুলোর সিলিংয়ের কাছে ছোট-ছোট যেসব গর্ত করা হয়।
    • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে দেওয়া যাবে এমন একটি উপকরণ কারণ “বাংলাদেশের প্রতিটি হাসপাতাল ও ক্লিনিকের প্রতিটি কক্ষে এগুলো রয়েছে।”
    • হাসপাতাল-কর্তৃপক্ষের ব্যবহৃত একটি দাহ্য বিষ্ফোরক দ্রব্য।
  • সরকারের নগদ অর্থ ও খাদ্য ত্রাণ সামগ্রী স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা দিচ্ছে কেন?
    • কারণ আওয়ামী লীগ ১৯৭৪ সালের দুর্ভিক্ষে ত্রাণ চুরির জন্য বিখ্যাত।
    • করোনা ভাইরাসের কারণে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা চুরি ও চাঁদাবাজীর সুযোগ হারিয়েছে বিধায় তাদের কিছুটা ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য।
    • সরকারি ত্রাণ যেহেতু গরিব মানুষের কাছে পৌঁছানোর আগেই বেশিরভাগ চুরি হয়ে যাবে, সুতরাং সেগুলো আওয়ামী লীগের নেতাদের কাছে পৌঁছালে সবার জন্যই ভালো।
    • এটি মুখোশধারী মানুষের জন্য মানুষকে ত্রাণ দেওয়ার কথা বলে তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র সংগ্রহের একটি সুযোগ তৈরি করেছে।