সোমবার বসছে অস্কারখ্যাত ব্রিটিশ কারি এওয়ার্ডের ১৫তম আসর: ভিন্নতা ও বিশ্বমানের অনুষ্ঠান উপহারের ঘোষণা

নিউজ

লণ্ডন, ২০ নভেম্বর – অস্কারখ্যাত ব্রিটিশ কারি এওয়ার্ডের ১৫তম আয়োজন হতে যাচ্ছে আগামী ২৫ নভেম্বর, সোমবার। এবারও লন্ডনের বাটারসি পার্কের দৃষ্টিনন্দন ভেন‍্যুতে বসছে এই বর্ণাঢ্য আসর। সে লক্ষ্যে অায়োজকদের নির্দেশমত এগিয়ে চলছে সব আয়োজন।

অনুষ্ঠান সূত্রে জানা যায় এবারের অনুষ্ঠানে এমন কিছু থাকবে যা ইতিপূর্বে কখনো ছিল না। প্রতিবারই ভিন্ন ভিন্ন থিমকে সামনে রেখে এই অনুষ্ঠানকে সাজানো হয়। এবারে তুলে ধরা হবে নিউইয়র্ক ব্রডওয়ের সংস্কৃতিকে।

ব্রিটিশ কারি এওয়ার্ডের ইতিহাসে দেখা যায় ব্রিটিশ রাজ্ পরিবারের সদস্য, টিভি ও ফিল্ম ব্যক্তিত্ব এবং ডাচেস অব ইয়র্ক সারাহ ফার্গুসনের হীরা খচিত পাদুকার সাথে একেবারে বাঙালি বধূর সাজে শাড়ি পরে লাল গালিচায় হাটা যেভাবে আকর্ষণ করেছিল দর্শকদের, যেভাবে বাঙালি তরুণীর সাঁজে অংশ নিয়ে অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে চমকে দিয়েছিলেন সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে। এবার ভিন্ন রকম ইন্টারন্যাশনাল কোরিগ্রাফার এর নৈপুণ্যে বিশ্বমানের লাইভ এন্টারটেইনমেন্টসহ নতুন কিছু দেখতে পাবেন ১৫তম কারি এওয়ার্ডের দর্শকরা।

আইটিএন এর জরিপে সারা বিশ্বে 434 মিলিয়ন মানুষের কাছে পৌঁছা ব্রিটিশ কারি এওয়ার্ডের এবারের বিশাল আয়োজনে মূলধারার সেলিব্রেটিদের ঢল নামবে বলে জানা গেছে। ব্রিটিশ কারি এওয়ার্ডের প্রথা অনুযায়ী এবারও নিত্যনতুন বিষয়ের পাশাপাশি অনুষ্ঠানের সেলিব্রিটি অতিথিদের নাম জানতে অপেক্ষা করতে হবে অনুষ্ঠানের দিন পর্যন্ত।

সরকারের সাথে  কারি শিল্পের ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে টেকওয়েসহ রেস্টুরেন্ট এর উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার এর সাফল্য এবং আরো বিভিন্ন বিষয়ে নতুন নতুন উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে বলে ব্রিটিশ কারি এওয়ার্ডের প্রতিষ্ঠাতা এনাম আলি এমবিই জানিয়েছেন। তরুণ প্রজন্মকে কারি শিল্পে উৎসাহিত করা ও বিশ্বের সাথে কারি শিল্পের সংযোগ স্থাপন করা কারি এওয়ার্ডের অন্যতম উদ্দেশ্য বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, কারিশিল্পের উন্নয়নে যারা সারা বছর রাতদিন পরিশ্রম করে থাকেন সেসব রন্ধনশিল্পী, রেস্টুরেন্ট এর মালিক, শুভানুধ্যায়ী ও কারি অনুরাগী কাস্টমারদের প্রতিবছর ব্রিটিশ কারি এওয়ার্ডের পক্ষ থেকে লাল গালিচা দিয়ে স্বাগত জানানো হয়।