এ লেভেল এ দুর্দান্ত ফল করেছে টাওয়ার হ্যামলেটসের শিক্ষার্থীরা

নিউজ

লণ্ডন, ২০ আগষ্ট – এ লেভেল পরীক্ষায় এবারও টাওয়ার হ্যামলেটস বরার পরীক্ষার্থীরা দুর্দান্ত সাফল্য অর্জন করেছে। বৃহস্পতিবার ১৬ আগষ্ট সারা দেশে একযোগে এই রেজাব্ব ঘোষনা করা হয়।
ফলাফলের প্রাথমিক পর্যালোচনায় দেখা গেছে যে, টাওয়ার হ্যামলেটসের এ লেভেল পরীক্ষার্থীদের প্রায় তিন ভাগই এ স্টার থেকে সি গ্রেড লাভ করেছে। এছাড়া ৯৮ দশমিক ৯ ভাগ কমপক্ষে ১টি এ স্টার – ই গ্রেড লাভ করে, যা গত বছরের তুলনায় ০.৩ শতাংশ বেশি।
ফল ঘোষনার সময় লাইমহাউজে অবস্থিত স্যার জন কাস স্কুলে উপস্থিত হয়েছিলেন বরার মেয়র জন বিগস। এসময় তিনিও ভালো ফল অর্জনকারী ছাত্র ছাত্রী ও শিক্ষকদের সাথে মিলে সাফল্য উদযাপন করেন। তিনি তাঁর প্রতিক্রিয়ায় অসাধারণ ফল অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের এবং এই সাফল্য অর্জনে তাদেরকে সহযোগিতাকারী স্কুল স্টাফদের অভিনন্দন জানান।
স্যার জন কাস স্কুলের সকল সিক্সথ ফরম শিক্ষার্থী যারা ইউনিভার্সিটিতে যেতে চায়, তারা তাদের লক্ষ্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে এবং পছন্দের ইউনিভার্সিটিতে নিজেদের আসন নিশ্চিত করেছে।
স্কুলের কৃতি শিক্ষার্থীদের একজন, জ্যাক মুহিদ ফলাফল শিট হাতে নেয়ার পর মেয়রের সাথে দেখা করেন ও উল্লাসে মেতে ওঠেন। হিস্ট্রি, সাইকোলোজি এবং ইংলিশ লিটারেচার – এই তিন বিষয়ে তিনটি ষ্ক্রএ স্টারম্ব পেয়েছেন মুহিদ। তিনি বলেন, আমার কঠোর পরিশ্রমের বিনিময় আমি পেয়েছি। আমি সাইকোলোজি নিয়ে ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন এ পড়তে আগ্রহী। এই সাফল্যের পেছনে আমার স্কুলের প্রচেষ্টাও কম ভূমিকা রাখেনি। শিক্ষকরা আমাকে শুধুমাত্র একজন ছাত্র হিসেবে নয়, একজন ব্যক্তি হিসেবে আমার প্রতি যেমন সম্মান দেখিয়েছেন, আমরাও তাদেরকে যথাযথ সম্মান করেছি।
স্কুলের আরেকজন শিক্ষার্থী এড্রিয়ান লুইসও মিডিয়া স্টাডিজ, ম্যাথস’ ও ইকোনোমিক্স এ তিনটি ষ্ক্রএ স্টারম্ব পেয়েছেন। তিনি তার প্রত্যাশার চেয়ে ভালো ফল করায় পছন্দের ইউনিভার্সিটি বাছাইয়ের বিষয়টি আবার পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নিবেন বলে জানান। এড্রিয়েন বলেন, এত ভালো ফল লাভ করে আমি নিজেই বিস্মিত এবং একই সাথে নিজেকে নিয়ে গর্বিত। সাফল্য অর্জনে যা যা দরকার, সবই করেছে আমার স্কুল।
বিটেক শিক্ষার্থীরাও একই সাথে তাদের রেজাব্ব লাভ করেছে। স্কুলের যেসকল ছাত্রছাত্রী বিটেক দিয়েছে, তারাও দারুণ ফল করেছে।
শিক্ষা বিষয়ক কেবিনেট মে“ার, কাউন্সিলর ড্যানি হ্যাসেল বলেন, বারার তরুণ প্রজন্ম যে কত মেধাবী, তা-ই ফুটে ওঠেছে এই ফলাফলের মধ্য দিয়ে। এটা সত্যিকার অর্থেই অসাধারণ এক সাফল্য এবং শিক্ষার্থীরা উচ্চচশিক্ষার জন্য যে দিকেই ধাবিত হোন, তাদের জন্য রইলো আমাদের শুভ কামনা। আমি তাদের কঠোর পরিশ্রমকে সম্মান জানাই এবং শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করায় গোটা বরার সকল স্কুল শিক্ষক ও স্টাফদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।